আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবস ২০১৯ ।। International Day of Forests 2019

আজ ২১ শে মার্চ, আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবস (International Day of Forests)। বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য অরণ্যের গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে প্রতিবছর ২১ শে মার্চ দিনটি আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবস রূপে পালন করা হয়। ২০১২ সালে রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভা এটি অনুমোদন করে। ২০১৩ সালে সর্বপ্রথম আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবস পালিত হয়। এবছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবসের থিম হল – “অরণ্য ও শিক্ষা” (Forests and Education)

আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবস

আজ আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবসে আসুন একনজরে দেখা যাক ভারতের রাজ্যভিত্তিক অরণ্যের হিসেবনিকেশ

জাতীয় বননীতি অনুসারে, ভারতের মোট আয়তনের ৩৩% অঞ্চল অরণ্য আবৃত রাখতে হবে। যদিও সেই লক্ষ্যে এখনও আমরা পৌঁছাতে পারিনি। ফরেস্ট সার্ভে অফ ইন্ডিয়া (FSI) এর ২০১৭ সালের রিপোর্ট অনুসারে, ভারতে মোট অরণ্যের পরিমাণ ৭,০৮২৭৩ বর্গকিমি, যা ভারতের মোট আয়তনের ২১.৫৪%। যদিও FAO এর Global Forest Resources Assessment (২০১৫) এর তথ্য অনুসারে ভারতে মোট অরণ্যের পরিমাণ ৭০.৬৮ মিলিয়ন হেক্টর, যা ভারতের মোট আয়তনের ২৩.৮%।

আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবস

এবার দেখে নেওয়া যাক ফরেস্ট সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার রিপোর্ট (২০১৭) অনুসারে ভারতের রাজ্যভিত্তিক অরণ্য-বন্টন। আমরা ভারতের রাজ্যগুলিকে ৪ টি শ্রেনীতে বিভক্ত করেছি –
(১) শ্রেণী-A (৭৫% এর বেশি অরণ্য অঞ্চল),
(২) শ্রেণী-B (৫০% এর বেশি থেকে ৭৫% পর্যন্ত অরণ্য অঞ্চল),
(৩) শ্রেণী-C (২৫% এর বেশি থেকে ৫০% পর্যন্ত অরণ্য অঞ্চল),
(৪) শ্রেণী-D (২৫% এর কম অরণ্য অঞ্চল)।

(১) শ্রেণী-A: এই শ্রেনীতে ভারতের ৫টি রাজ্য রয়েছে। রাজ্যগুলি হল – মিজোরাম (৮৬.২৭%), অরুণাচল প্রদেশ (৭৯.৯৬%), মণিপুর (৭৭.৬৯%), মেঘালয় (৭৬.৭৬%), নাগাল্যান্ড (৭৫.৩৩%)। মিজোরাম রাজ্যে আয়তন (শতাংশ) অনুসারে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ অরণ্য রয়েছে।

(২) শ্রেণী-B: এই শ্রেনীতে ভারতের ৩টি রাজ্য রয়েছে। রাজ্যগুলি হল – ত্রিপুরা (৭৩.৬৮%), গোয়া (৬০.২১%), কেরালা (৫২.৩০%)।

(৩) শ্রেণী-C: এই শ্রেনীতে ভারতের ৮টি রাজ্য রয়েছে। রাজ্যগুলি হল – সিকিম (৪৭.১৩%), উত্তরাখন্ড (৪৫.৪৩%), ছত্তিশগড় (৪১.০৯%), আসাম (৩৫.৮৩%), ওড়িশা (৩২.৯৮%), ঝাড়খন্ড (২৯.৫৫%), হিমাচলপ্রদেশ (২৭.১২%), মধ্যপ্রদেশ (২৫.১১%)। মধ্যপ্রদেশ রাজ্যে আয়তন (বর্গকিমি) অনুসারে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ অরণ্য রয়েছে।

(৪) শ্রেণী-D: এই শ্রেনীতে ভারতের ১৩টি রাজ্য রয়েছে। রাজ্যগুলি হল – তামিলনাড়ু (২০.২১%), কর্ণাটক (১৯.৫৮%), পশ্চিমবঙ্গ (১৮.৯৮%), তেলেঙ্গানা (১৮.২২%), অন্ধ্রপ্রদেশ (১৭.২৭%), মহারাষ্ট্র (১৬.৪৭%), জম্মু ও কাশ্মীর (১০.৪৬%) বিহার (০৭.৭৫%), গুজরাট (০৭.৫২%), উত্তরপ্রদেশ (০৬.০৯%) রাজস্থান (০৪.৮৪%), পাঞ্জাব (০৩.৬৫%), হরিয়ানা (০৩.৫৯%)। হরিয়ানা রাজ্যে আয়তন (শতাংশ ও বর্গকিমি) অনুসারে সবচেয়ে কম পরিমাণ অরণ্য রয়েছে।

-অরিজিৎ সিংহ মহাপাত্র।।

তথ্যসূত্রঃ- Forest Survey of India ; FAO ; Wikipedia

Tag: আন্তর্জাতিক অরণ্য দিবস, International Day of Forests, ভারতের রাজ্যভিত্তিক অরণ্য

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 157
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    157
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!